ঢাকা, শনিবার, ৮ মাঘ ১৪২৮, ২২ জানুয়ারি ২০২২, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

চসিকের আবাসন প্রকল্পের কাজ বন্ধ করে দিয়েছে সিডিএ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১১৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৭, ২০১৪
চসিকের আবাসন প্রকল্পের কাজ বন্ধ করে দিয়েছে সিডিএ ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চট্টগ্রাম: এবার চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের(চসিক) একটি আবাসিক প্রকল্পের কাজ বন্ধ করে দিয়েছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ(সিডিএ)। সোমবার সন্ধ্যায় প্রকল্পটি পরিদর্শন শেষে পাহাড় কাটার অভিযোগ এনে কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় তারা।



করপোরেশনের কাউন্সিলরদের বর্জনের মুখে সিডিএ’র মতবিনিময় সভা পণ্ড হওয়ার পরই এ সিদ্ধান্ত দেয় সিডিএ।
 
চসিকের অভিযোগ, সিডিএ’র নকশা অনুযায়ী কাজ হচ্ছে। কোনো পাহাড় কাটা হয়নি। রাতের অন্ধকারে করপোরেশনকে না জানিয়ে উদ্দেশ্যমূলকভাবে কাজ বন্ধ রাখতে বলছে সিডিএ।    

চট্টগ্রামের উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে উল্লেখিত সংস্থা দু’টির মধ্যে দ্বন্দ্ব চললেও সিডিএ’র নতুন মাস্টার প্ল্যান প্রণয়ন নিয়ে এবার তা প্রকাশ্য রুপ নিয়েছে। সোমবার নতুন মাস্টার প্ল্যান নিয়ে সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলরদের নিয়ে মতবিনিময় সভা আহবান করে সিডিএ।

কিন্তু করপোরেশনের সঙ্গে কোন ধরণের সমন্বয় না করার অভিযোগ এনে মতবিনিময় সভা বর্জন করার সিদ্ধান্ত নেয় কাউন্সিলররা। এমনকি রোববার করপোরেশনের সাধারণ সভায় পাল্টা প্ল্যান তৈরিরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে রোববার রাতে বাধ্য হয়ে মতবিনিময় সভা স্থগিত করে সিডিএ।

এদিকে সোমবার সন্ধ্যায় নগরীর ফয়’স লেক এলাকায় সিটি করপোরেশনের ‘লেকসিটি আবাসন প্রকল্প’ নামের প্রকল্পটি পরিদর্শন করে সিডিএ ও পরিবেশ অধিদপ্তর। এ সময় আবাসন প্রকল্পের প্লট তৈরিতে পাহাড় কাটার প্রমান পাওয়া গেছে উল্লেখ করে কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় সিডিএ।

চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ(ভারপ্রাপ্ত) শাহীনুল ইসলাম খান বাংলানিউজকে বলেন, ‘পাহাড়ের অবয়ব ঠিক রাখার শর্তে প্রকল্পটির নকশা অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল। এখানে শর্ত ভঙ্গ করে পাহাড় কেটেছে তারা। তাৎক্ষনিক পরিদর্শন করে তার প্রমাণ পাওয়া গেছে। তাই পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ’

সন্ধ্যায় পরিদর্শন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি আজকেই আমাদের নজরে এসেছে। তাই তাৎক্ষনিক পরিদর্শনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আমরাতো আর একা যেতে পারি না, সঙ্গে পুলিশ ফোর্সও নিতে হয়। যখন ফোর্স পাওয়া গেছে তখনই পরিদর্শন করেছি। ’

তবে পরিদর্শনের বিষয়টি স্বয়ং প্রকল্প পরিচালকই জানেন না। করপোরেশনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ও প্রকল্পটির পরিচালক রফিকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন,‘সোমবার সন্ধ্যায় কোনো সংস্থার পরিদর্শনের বিষয়টি আমি জানি না। কেউ আমাকে জানায়নি। কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশনাটির বিষয়েও জানি না। ’

তিনি বলেন, ‘সিডিএ’র নকশা অনুযায়ী কাজ করা হচ্ছে। প্লট তৈরির জন্য আমরা শুধু লেভেলিং আর ড্রেসিংয়ের কাজ করেছি। কোনো পাহাড় কাটিনি। সিডিএ’র শর্ত অনুযায়ী যেখানে যা রাখতে বলা হয়েছে তা রাখা হয়েছে। এরপরও যদি কাজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত দেয়, তাহলে কেন দিয়েছে আমি জানি না। ’

সিটি করপোরেশনের এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘কাউন্সিলরদের সভা বর্জনের জের ধরে রাতের আধারে উদ্দেশ্যমূলকভাবে পরিদর্শন করে প্রকল্পটির কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশনা দিয়েছে সিডিএ। ’

প্রসঙ্গত, নগরীর ফয়’স লেকের পেছনে লেক সিটি আবাসিক প্রকল্প গড়ে তোলার জন্য ২০০৩ সালে ৩১ একর জায়গা ক্রয় করে সিটি করপোরেশন। ২০০৬ সালের শেষের দিকে আড়াই কাঠা আয়তনের এসব প্লট বরাদ্দ দেওয়া শুরু হয়। ৫৪৭ জনকে প্লট বরাদ্দ দিয়েছে করপোরেশন। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর সম্প্রতি এ প্রকল্পের উন্নয়ন কাজ শুরু করে সিটি করপোরেশন।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৪ ঘণ্টা, জানুয়ারী ২৭, ২০১৪

* পাল্টা প্ল্যান প্রণয়ন করবে করপোরেশন!

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa