ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

অপহরণের পর ধর্ষণের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৪
অপহরণের পর ধর্ষণের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন

চট্টগ্রাম: অপহরণের পর এক তরুণীকে ধর্ষণের দায়ে মো.শাকিল (২২) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। একই রায়ে আদালত সামশু বৈদ্য (৫০) নামে আরেক আসামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন।



মঙ্গলবার চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক মো.রেজাউল করিম এ রায় দিয়েছেন।

ট্রাইব্যুনালের পিপি অ্যাডভোকেট চন্দন তালুকদার বাংলানিউজকে বলেন, ধর্ষক শাকিলের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ (১১)/৩০ ধারায় আনা অভিযোগ রাষ্ট্রপক্ষ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে পারায় আদালত তাকে যাবজ্জীবন সাজা দিয়েছেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১১ সালের ১৩ জুন চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার গুজরা এলাকার হাজী জাফরের ছেলে মো.শাকিল সহযোগী সামশু বৈদ্যসহ মিলে প্রতিবেশী এক তরুণীকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। তরুণীকে একই উপজেলার হাইলধর গ্রামে একটি কাচারিঘরে নিয়ে গিয়ে শাকিল জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় ওই বছরের ২২ জুন ওই তরুণী বাদি হয়ে আনোয়ারা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলা তদন্ত শেষে একই বছরের ২৮ নভেম্বর আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করে পুলিশ। ২০১২ সালের ২৫ জুলাই আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

অভিযোগপত্রে উল্লিখিত ১৯ জন সাক্ষীর মধ্যে ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে মঙ্গলবার আদালত এ রায় দেন।

হাজতে থাকা শাকিলকে রায় ঘোষণার পর পুনরায় কারাগারে ফেরত নিয়ে যাওয়া হয়েছে। অপর আসামী সামশু বৈদ্য শুরু থেকেই পলাতক আছেন বলে সূত্র জানিয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষে পিপি অ্যাডভোকেট চন্দন তালুকদার এবং আসামীপক্ষে কাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মামলা পরিচালনা করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৭ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৪,২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa