ঢাকা, শনিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

তালেবান ইস্যুতে সংবাদ প্রকাশ না করার নির্দেশ কাশ্মীরে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৩৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২১
তালেবান ইস্যুতে সংবাদ প্রকাশ না করার নির্দেশ কাশ্মীরে

কাশ্মীরের মুসলিমদের নিয়ে কথা বলার অধিকার রয়েছে বলে তালেবান দাবি করার পরেই সতর্ক হয়েছে জম্মু-কাশ্মীরের প্রশাসন। তালেবান অর্থাৎ আফগানিস্তান ইস্যুতে কোনো কিছু লেখা যাবে না বলে স্থানীয় সংবাদপত্রগুলোকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তালেবানের এমন বক্তব্য সামনে আসার আগে থেকেই অবশ্য জম্মু-কাশ্মীরের প্রশাসন আফগানিস্তানের পরিস্থিতির ওপর কড়া নজর রাখছিল। ১৫ অগস্ট তৎকালীন প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি যখন দেশ ছাড়েন, কাশ্মীরের সংবাদপত্রগুলি সেই খবর প্রথম পৃষ্ঠায় প্রকাশ করেছিল।

পরের দিনই তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে পত্রিকার সম্পাদকদের ডেকে বলে দেওয়া হয়, তালেবান কিংবা আফগানিস্তানের প্রসঙ্গে কোনো খবর যদি তারা প্রকাশ করেন, তা হলে সরকারি বিজ্ঞাপন মিলবে না।

স্থানীয় একটি উর্দু পত্রিকার সম্পাদক বলেন, দপ্তর থেকে আমাদের ডেকে পাঠানো হয়েছিল। নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, আফগানিস্তান নিয়ে কোনো কিছু লেখা যাবে না। লিখলে সরকারি বিজ্ঞাপন মিলবে না। এরই জের ধরে গতকাল কাশ্মীর নিয়ে তালেবানের বক্তব্য উপত্যকার কোনো কাগজে প্রকাশিত হয়নি।

হুরিয়ত নেতা সৈয়দ আলি শাহ গিলানির মৃত্যুর খবরও কাশ্মীরের সংবাদপত্রগুলোতে গুরুত্ব দিয়ে ছাপা হয়নি। সম্পাদকেরা জানিয়েছেন, জম্মু-কাশ্মীরের উপরাজ্যপাল মনোজ সিনহার মিডিয়া উপদেষ্টা এ নিয়ে বড় খবর না করার জন্যই তাদের বলেছিলেন। অঘোষিত এই সব নির্দেশের মধ্যে সংবাদপত্রগুলোতে তা হলে কী ছাপছে?

কাশ্মীরের সংবাদপত্রগুলোতে সবচেয়ে বেশি জায়গা মিলছে জম্মু-কাশ্মীরের উপরাজ্যপাল মনোজ সিনহার। বছর বছর সংঘর্ষের মধ্যে খবর করে টিকে রয়েছে কাশ্মীরের সংবাদপত্রগুলো। সে নিয়ে এক গবেষক বলেন, মনোজ সিনহা যে প্রচার পাচ্ছেন, তা অভূতপূর্ব। মোদীও তা পান না।

এদিকে, কাশ্মীরে সংবাদ করার ক্ষেত্রেও কিছু পরিবর্তন এসেছে। যেমন, এনকাউন্টারের প্রসঙ্গ এলে পুলিশের বক্তব্যই প্রকাশ করছে সংবাদপত্রগুলো। সেক্ষেত্রে যদি আইন-শৃঙ্খলার মতো বিষয় যোগ হয় তবে তা নিয়ে খবর প্রকাশিত হয় না।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৩১ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৫, ২০২১
এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa