ঢাকা, সোমবার, ২ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সালতামামি

সালতামামি ২০২০

নারায়ণগঞ্জে আলোচনায় ছিল মসজিদে বিস্ফোরণ-খোরশেদের টিম

মাহফুজুর রহমান পারভেজ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০১৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০২০
নারায়ণগঞ্জে আলোচনায় ছিল মসজিদে বিস্ফোরণ-খোরশেদের টিম ...

নারায়ণগঞ্জ: নানা ঘটনা-দুর্ঘটনায় নারায়ণগঞ্জবাসী পার করতে যাচ্ছে আরও একটি বছর। ২০২০ সালে সারা বিশ্বের মতো নারায়ণগঞ্জেও স্থবিরতা এনেছিল করোনা।

সেই স্থবিরতা না কাটতেই মসজিদে বিস্ফোরণ, জিসা মনি কাণ্ডসহ নানা ঘটনায় পুরো দেশেই আলোচিত ছিল নারায়ণগঞ্জ। পাঠকদের জন্য থাকলো জেলার আলোচিত কিছু ঘটনা।

করোনা ও খোরশেদের টিম

নারায়ণগঞ্জ পুরো দেশে বছরের শুরু থেকেই আলোচনায় ছিল করোনা ইস্যুতে। করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশে শনাক্ত প্রথম তিন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির একজন ছিল নারায়ণগঞ্জের টানবাজার এলাকার। যিনি ছিলেন ইতালি ফেরত। পরবর্তী সময়ে করোনা পরিস্থিতি খুবই নাজুক হয় এ জেলায়। সংক্রমণ ঠেকাতে আরোপ করা হয় নানা বিধিনিষেধ।

এ পর্যন্ত জেলায় সাড়ে ৮ হাজার ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ১৫০ জন। সুস্থ হয়েছেন ৮ হাজার ১৫ জন ব্যক্তি।

করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার প্রাথমিক পর্যায়ে নারায়ণগঞ্জে ঘরে বাবার মরদেহ পড়ে থাকলেও সেই রুমেই প্রবেশ করতো না সন্তানরা। এখনো অনেকে নিজের প্রিয়জনের মরদেহ কোথায় কবর দেওয়া হয়েছে সেটিও জানতে চাননি। এমন সংকটময় পরিস্থিতিতে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ এগিয়ে আসেন নিজের জীবনের মায়া তুচ্ছ করে। তার সঙ্গে যোগ দেন একদল সাহসী মানুষ। যারা এই মানবিক সংকটে করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা, মৃতদের দাফন-কাফন-গোসল, সৎকার, মুখাগ্নিও করেছেন। শুধু নারায়ণগঞ্জ নয় পুরো দেশেই তারা করোনায় আক্রান্তদের সহায়তায় নিজেদের চেষ্টা চালিয়ে গেছেন।


মসজিদে বিস্ফোরণ

নারায়ণগঞ্জে এ বছরের ৪ সেপ্টেম্বর রাতে সদর উপজেলার তল্লা এলাকার বাইতুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ সময় মসজিদের ভেতরে দগ্ধ অবস্থায় ৩৭ জনকে উদ্ধার করে ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় এদের মধ্যে ৩৪ জন মারা গেছেন। মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় ৫ সেপ্টেম্বর ফতুল্লা থানার এসআই হুমায়ন কবির বাদী হয়ে ফতুল্লা থানায় মামলা করেন। পরবর্তীতে মামলাটি সিআইডিতে হস্তান্তর করা হয়।

জিসাকাণ্ড

আদালতে জবানবন্দীতে তিনজন স্বীকার করেছে স্কুল ছাত্রী জিসা আক্তারকে (১৫) গণধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে শীতলক্ষ্যা নদীতে ভাসিয়ে দিয়েছেন। আদালতে আসামিদের দেওয়া সেই বক্তব্য গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন পুলিশ। পরিবারের লোকজনও মেয়ের জন্য ছিল দিশেহারা। কিন্তু এ অবস্থায় ফিরে এসেছেন সেই জিসা আক্তার। তাকে কেউ হত্যা বা গণধর্ষণ করেনি। বরং প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে করেই আত্মগোপনে ছিলেন তিনি।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনা না ঘটলেও মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে রিমান্ডে এনে আসামিদের নির্যাতন করে তাদের দিয়ে হত্যাকাণ্ডের গল্প সাজিয়ে সেই গল্প আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি হিসেবে রেকর্ড করে পুরো দেশে আলোচনার জন্ম দিয়েছিল পুলিশ। আসামিদের স্বজনরা এমন অভিযোগ করেছেন এবং অভিযোগের পাশাপাশি রিমান্ডে নির্যাতন না করতে পুলিশকে টাকা দিয়েছেন বলেও জানান।

দেবোত্তর সম্পত্তি দখল

নারায়ণগঞ্জ লক্ষ্মী নারায়ণ আখড়ার বেদখল দেবোত্তর সম্পত্তি জিউস পুকুর দখলের অভিযোগে এনে পুনরুদ্ধারে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভীকে ভূমিদস্যূ উল্লেখ করে তিনি ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে প্রতীকী অনশন, প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান ও গণ অবস্থান কর্মসূচি পালন জেলাজুড়ে আলোচনার জন্ম দেয়। বিভিন্ন সংগঠন ও রাজনৈতিক দল একত্রিত হয়ে আইভীর বিরুদ্ধে নিয়মিত কর্মসূচি পালন করে দ্রুত এ সম্পত্তি মন্দির কর্তৃপক্ষকে ফিরিয়ে দিতে অনুরোধ করে।

বাংলাদেশ সময়: ১০১৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০২০
এইচএডি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa