ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সালতামামি

সালতামামি-২০২১

জাহাঙ্গীর ইস্যুতে উত্তাল গাজীপুর, দৃষ্টি ছিল কাশিমপুর কারগারে

মো. রাজীব সরকার, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯২২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৮, ২০২১
জাহাঙ্গীর ইস্যুতে উত্তাল গাজীপুর, দৃষ্টি ছিল কাশিমপুর কারগারে

গাজীপুর: জাহাঙ্গীর আলম দল থেকে বহিষ্কার, মেয়র পদ থেকে বরখাস্ত বছরের শেষ দুই মাস গাজীপুরে ছিল বেশ উত্তাল। সারা দেশে হয়েছে আলোচিত ও সমালোচিত।

আর সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম, চিত্র নায়িকা পরীমনি ও হেফাজত নেতা মামুনুল হক এবং শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানিকে গ্রেফতারের কারণে গাজীপুরের কাশিমপুর কারগার ছিল বেশ সরগরম।

এছাড়াও গাজীপুরের করোনার ভয়াবহতার কারণের ব্যবসায়ীরা ও শ্রমজীবী মানুষ হয়েছে হতাশাগ্রস্ত। বিভিন্ন সড়কে দুর্ঘটানা আর ছোট বড় অগ্নিকাণ্ডও আলোচনার বিষয়। বছরের মাঝামাঝিতে নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে গাজীপুরে ‘দামে কম মানে ভালো কাকলি ফার্নিচার’।  

জাহাঙ্গীর আলম:
মো. জাহাঙ্গীর আলম ছিলেন গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র এবং মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। গত সেপ্টেম্বর মাসে জাহাঙ্গীর আলমের কথোপকথনের একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়। ভিডিওতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও গাজীপুরের কয়েকজন নেতা সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করেন। ওই ভিডিও ভাইরালের পর ক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। তারা মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ, মিছিল ও অবরোধ করে। এ ঘটনায় গাজীপুরের রাজনীতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পরে ৩ অক্টোবর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে জাহাঙ্গীর আলমকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। নোটিশের জবাব দিতে বলা হয় ১৮ অক্টোবরের মধ্যে। এরপর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম নোটিশের জবাব দেন ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি সুপার এডিট করা। কিন্তু জাহাঙ্গীর আলমের শাস্তির দাবিতে অনড় থাকেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। পরে ১৯ নভেম্বর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র ও গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। ওই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর ২৫ নভেম্বর গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদ থেকে জাহাঙ্গীর আলমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। বছরের শেষের দুই মাস মেয়র জাহাঙ্গীর আলম ইস্যুতে গাজীপুর ছিল উত্তাল।  

চিত্র নায়িকা পরীমনি:
২০২১ সালের ৪ আগস্ট চিত্র নায়িকা পরীমনির বনানী বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় বিভিন্ন মাদকদ্রব্যসহ পরীমনিকে আটক করে। পরে তার বিরুদ্ধে বনানী থানায় মাদক মামলা করা হয়। ওই মামলায় ৫ আগস্ট পরীমনিকে ৪ দিন এবং ১০ আগস্ট দ্বিতীয় দফায় ২ দিনের রিমান্ডে পাঠান আদালত।  

পরে ১৩ আগস্ট জামিন আবেদন নাকচ করে পরীমনিকে গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানোর হয়। ফের ১৯ আগস্ট তৃতীয় দফায় পরীমনিকে এক দিনের রিমান্ডে ঢাকায় নেওয়া হয়। রিমান্ড শেষে ২১ আগস্ট পুনরায় পরীমনিকে ওই কারাগারে পাঠানো হয়। পরে ৩১ আগস্ট জামিন পান এবং ১ সেপ্টেম্বর সকালে কারাগার থেকে পরীমনিকে মুক্তি দেওয়া হয়।  

সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম:

পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামকে ১৭ মে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে প্রায় ৬ ঘণ্টা আটকে রেখে হেনস্তা ও নির্যাতন করা হয়। সেই রাতে তাকে শাহবাগ থানায় হস্তান্তর এবং তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। ওই মামলায় সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি করা হয়। গাজীপুরসহ সারাদেশেই ঘটনাটি এবং কাশিমপুর কারাগার নিয়ে আলোচিত-সমালোচিত হয়। পরে ২৩ মে বিকেলে রোজিনা ইসলাম কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পান।  

হেফাজত নেতা মামুনুল হক-শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানী:

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মামুনুল হক।  ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সফর ঘিরে  সহিংসতা ও রিসোর্টকাণ্ডে রাজধানীর পল্টন থানা ও সোনারগাঁ থানায় ২টি মামলা হয় তার বিরুদ্ধে। এছাড়া ২০১৩ সালের শাপলা চত্বর তাণ্ডবের ঘটনায়ও তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। এসব মামলায় ১৮ এপ্রিল তাকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। পরে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে তাকে বন্দি রাখা হয়।

এদিকে রাষ্ট্রবিরোধী, উসকানিমূলক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে রফিকুল ইসলাম মাদানির বিরুদ্ধে ৮ এপ্রিল র‌্যাব বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গাজীপুরের গাছা থানায় মামলা করে। এর আগের দিন ৭ এপ্রিল ভোরে তাকে গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার লেটিরকান্দা থেকে আটক করে র‌্যাব। তার নামে আরও একটি মামলা করা হয় ঢাকায়। এসব মামলায় ১০ এপ্রিল সকালে শিশুবক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানীকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে নেওয়া হয়। এখন তিনি কাশিমপুর কারাগারে বন্দি রয়েছেন।  

এসব কারণেই সারা দেশের মানুষের দৃষ্টি থাকে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার এবং সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের দিকে। আলোচনায়-সমালোচনায় ছিলেন বহিস্কৃত গাজীপুর সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, চিত্র নায়িকা পরীমনি, সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম, হেফাজত নেতা মামুনুল হক ও শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানী।

এছাড়াও গাজীপুরে বিভিন্ন শিল্প কারখানা ও ঝুট গুদামে অসংখ্য অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ঘটে। এতে বেশ কয়েক জনের প্রাণহানি এবং কোটি কোটি টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়।

বাংলাদেশ সময়: ০৯২০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৮, ২০২১
আরএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa