ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সালতামামি

প্রশংসা কুড়িয়েও বিতর্কিত প্রশাসন 

ইসমাইল হোসেন, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৯, ২০২১
প্রশংসা কুড়িয়েও বিতর্কিত প্রশাসন 

ঢাকা: বিদায়ী বছরেও মহামারির মধ্যে বিধি-নিষেধের মধ্যে নানা কর্মকাণ্ডে প্রশংসা কুড়িয়েছেন প্রশাসনের কর্তা-ব্যক্তিরা। বছরের মাঝামাঝি চার মাসের বেশি চলা বিধি-নিষেধে সরকারি সেবাদানে যেমন অগ্রগামী ছিল, তেমনি কিছু কর্মকর্তার কারণে সুনাম কিছুটা ক্ষুণ্ন হয় প্রশাসনের।



বছরের শেষে ‘মুরাদ ইস্যু’ সরকারকেই ব্রিবত করেছে। তবে, তার মন্ত্রিত্ব কেড়ে নেওয়ায় আবার সেই সুনামের শূন্যতাও পূরণ হয়েছে অনেকটা।   

প্রশাসনের কিছু কর্মকর্তার বিতর্কিত কর্মকাণ্ড, মাঠপর্যায়ে জনপ্রতিনিধিদের সাথে বৈরিতা, জামালপুরের ডিসির দণ্ড মওকুফ, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নথি গায়েব ছিল সমালোচনার জায়গায়।  
সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সম্পদের হিসাব বিবরণী জমা দেওয়ার ইস্যু নিয়ে উদ্যোগী সরকারের আমলাদের পিছুটান সমালোচনার খাতা ভারি করে দেয়।  

করোনা সামলে প্রশংসা

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে চলতি বছরের ৫ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা পর্যন্ত লকডাউন দেয় সরকার। তবে গণপরিবহন, মার্কেট খোলা রেখে এই লকডাউন ছিল অনেকটাই অকার্যকর। তাতে ইতিবাচক ফলের পরিবর্তে নেতিবাচক ফলই পাওয়া যায়। পরে ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে আট দিনের কঠোর বিধি-নিষেধ শুরু হয়। পর্যায়ক্রমে বিধি-নিষেধের কার্যক্রম বিভিন্ন ফর্মে নেওয়া হলেও ২৩ জুলাই থেকে ১৪ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। সেই বিধিনিষেধ শেষ হয় ১০ আগস্ট। এরপর ১১ আগস্ট থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সরকারি-বেসরকারি অফিস, শিল্প-কারখানা, গণপরিবহন, দোকান ও শপিংমলসহ মোটামুটি সবই খুলে দেওয়া হয়। মাঠে কাজ করতে গিয়ে অনেকেই আক্রান্ত ও মৃত্যুবরণ করেছেন। বিধিনিষেধের সময় মহামারি মোকাবিলায় প্রশাসন বেশ সুনাম কুড়ায়।

চাকরিপ্রার্থীদের বয়সে ছাড়

মহামারির কারণে নিয়োগ প্রক্রিয়া আটকে থাকায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রার্থীদের চাকরিতে প্রবেশের ক্ষেত্রে বয়সে ছাড় দিয়ে গত ১৯ আগস্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোকে নির্দেশনা দেয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রকাশিতব্য বিজ্ঞপ্তিতে প্রার্থীদের সর্বোচ্চ বয়সসীমা গত বছরের ২৫ মার্চ নির্ধারণ করার জন্য বলা হয়। এতে চাকরিপ্রার্থীরা বয়সের ক্ষেত্রে ২১ মাসের ছাড় পান।

ইউএনও-মেয়র দ্বন্দ্বের জের কেন্দ্রে

বরিশালের সিঅ্যান্ডবি সড়কে গত ১৮ আগস্ট রাতে উপজেলা পরিষদ কম্পাউন্ডে শোক দিবসের ব্যানার অপসারণকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের মধ্যে রাতভর সংঘর্ষ হয়। এ সময় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মুনিবুর রহমানের সরকারি বাসভবনেও হামলা হয়। এ ঘটনার মামলায় বরিশালের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহকে হুকুমের আসামি করা হয়। বিষয়টি রাজনৈতিক নেতারা এবং প্রশাসনের মধ্যে দ্বন্দ্বে রূপ নেয়। এ নিয়ে ১৯ আগস্ট প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তাদের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের বিবৃতিতে প্রশাসনের দূরদর্শিতা এবং দায়িত্ববোধ নিয়ে প্রশ্ন উঠে। এ ঘটনায় রাজনীতিবিদ ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের বৈরিতা সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে উভয় পক্ষ বসে সমঝোতার হাত মেলায়।  

আপা-ভাই না স্যার?

গত ৪ অক্টোবর কুমিল্লার বুড়িচংয়ে ইউএনও মোছাম্মৎ সাবিনা ইয়াছমিনকে ‘আপা’ সম্বোধন করায় জামাল উদ্দিন নামের স্থানীয় এক ব্যবসায়ীকে ‘মা’ ডাকতে বলেন ওই ইউএনও। ৩০ মে মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা অনিরুদ্ধ দাশকে এক সাংবাদিক ‘স্যার’ না ডেকে ‘ভাই’ বলে সম্বোধন করায় বিরক্ত হন। তার ভাষ্য- আপনি জানেন এই চেয়ারে বসতে আমাদের কত কষ্ট করতে হয়েছে? গত ৮ জুলাই মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার ইউএনও রুনা লায়লাকে ‘আপা’ বলায় তার নির্দেশে এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠে।  

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এ বিষয়ে বলেন, স্যার বলার রেওয়াজ নেই। সরকারি চাকুরেরা জনগণের সেবক, যাতে সরকারি চাকুরেদের থেকে সেবা থেকে তারা বঞ্চিত না হয় সেজন্য উভয়পক্ষকেই সংযত হতে হবে।

 সচিবের মায়ের সেবায় ২৪ জন
মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব রওনক মাহমুদের মায়ের সেবায় এক উপসচিবসহ ২৪ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে দায়িত্ব দেওয়ার ঘটনা সমালোচনার জন্ম দেয়। করোনা আক্রান্ত হয়ে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের করোনা ইউনিটে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। যদিও তিনি তা অস্বীকার করে বসেন।

ছাগলের মালিকের জরিমানা!

ফুলগাছ খাওয়ার অভিযোগে বগুড়ার আদমদীঘির ইউএনও সীমা শারমিন ১৭ মে একটি ছাগলের মালিকের ২ হাজার টাকা জরিমানা করেন। ৯ দিন পর মালিককে না জানিয়ে সেটি বিক্রি করার অভিযোগ ওঠে। এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশের পর সেই জরিমানার টাকা নিজে পরিশোধ করে ছাগলটি মালিকের কাছে ফিরিয়ে দেন ইউএনও। ইউএনও সীমা শারমিনকেও পর বদলি করা হয়।

আরও সমালোচিত ও বিতর্কিত যারা

বিধি-নিষেধের মধ্যে ২ জুলাই চেম্বারে যাওয়ার পথে ডা. ফরহাদ কবিরকে সাতকানিয়া ইউএনও এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নজরুল ইসলামের চেকপোস্টে তল্লাশির মুখে পড়েন। এসময় তাকে জরিমানাও করা হয়। বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা হলে ৪ জুলাই ইউএনও নজরুল ইসলামকে ওএসডি করা হয়।  

নারায়ণগঞ্জে গত ১৯ মে ৩৩৩ নম্বরে কল করে খাদ্য সহায়তা চেয়েছিলেন সদর উপজেলার ফরিদ আহমেদ। উপজেলা প্রশাসনের লোকজন গিয়ে জানতে পারেন সাহায্য চাওয়া ওই ব্যক্তি চারতলা বাড়ি এবং হোসিয়ারি কারখানার মালিক। সদরের ইউএনও আরিফা জহুরা অযথা হয়রানি ও সময় নষ্ট করার দায়ে ফরিদ আহমেদকে শাস্তি হিসেবে ১শ গরিব লোকের মধ্যে খাদ্য সহায়তা বিতরণের নির্দেশ দেন। সেটি না করলে তিন মাসের কারাদণ্ড হতে পারে। এই ভয়ে ঋণ, সোনা বন্ধক রেখে আদেশ পালন করেন। কিন্তু সম্পদের মালিক নন ফরিদ। বিষয়টি নিয়ে সমালোচনার পর  তদন্ত করে প্রশাসন।  

ডিসি সুলতানার শাস্তি মওকুফ

মধ্যরাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সাংবাদিককে হয়রানিমূলকভাবে কারাদণ্ড দেওয়ার ঘটনায় কুড়িগ্রামের সাবেক ডিসি সুলতানা পারভীনের ২ বছরের জন্য বেতন বৃদ্ধি স্থগিত করেছিল সরকার। সেই দণ্ড বাতিল করে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়ে গত ২৩ নভেম্বর প্রজ্ঞাপন জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। এই ঘটনায় ব্যাপক সমালোচনার তৈরি হয়।

জামালপুরের সাবেক ডিসির শাস্তি

নারী অফিস সহকারীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশের ঘটনায় জামালপুরের সাবেক ডিসি আহমেদ কবীরের বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে আদেশ জারি করা হয়। শাস্তি হিসেবে তার বেতন কমিয়ে প্রায় অর্ধেক করা হয়েছে। একইসঙ্গে তিনি চাকরি জীবনে আর কোন পদোন্নতি পাবেন না।  

সম্পদের হিসাব

‘সরকারি কর্মচারী (আচরণ) বিধিমালা, ১৯৭৯’ অনুযায়ী পাঁচ বছর পর পর সরকারি চাকরিজীবীদের সম্পদ বিবরণী দাখিল এবং স্থাবর সম্পত্তি অর্জন বা বিক্রির অনুমতি নেওয়ার নিয়ম রয়েছে। কিন্তু সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা এ নিয়ম মানছেন না। বিধিমালাটি বাস্তবায়নের মাধ্যমে সম্পদ বিবরণী দাখিল ও স্থাবর সম্পত্তি অর্জন বা বিক্রির নিয়ম মানতে সব মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সিনিয়র সচিব/সচিবদের কাছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে চলতি বছরের ২৪ জুন চিঠি পাঠানো হয়। প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অনেকেই বিষয়টি ইতিবাচকভাবে না নেওয়ায় প্রায় ধামাচাপা পড়ে যায় ইস্যুটি।  

পদোন্নতি পেয়ছেন প্রায় ৬০০ জন

প্রশাসনে সচিব থেকে উপসচিব পর্যন্ত ৬০০’র বেশি কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দেওয়া হয়। ৭ মার্চ ৩৩৭ কর্মকর্তাকে সিনিয়র সহকারী সচিব থেকে উপসচিব পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়। গত ৭ সেপ্টেম্বর ৯২ জন যুগ্মসচিবকে অতিরিক্ত সচিব করা হয়। ২৯ অক্টোবর ২১৩ কর্মকর্তা উপসচিব থেকে যুগ্মসচিব হন। আর সচিব পদে পদোন্নতি পেয়ছেন ৩০ জন।  

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নথি গায়েব

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ ১৭টি নথি গায়েব হওয়ার ঘটনায় গত ২৮ অক্টোবর শাহবাগ থানায় একটি জিডি করা হয়। এ ঘটনা চার থেকে পাঁচ কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।  
নতুন নাম পেয়েছে তথ্য মন্ত্রণালয় তথ্য মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তন করে ‘তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়’ রাখা হয়। গত ১৫ মার্চ এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

সার্বিক মূল্যায়ন নিয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, জনপ্রশাসনকে জনমুখী প্রশাসন হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছেন তারা। দেশের মানুষের উন্নত জীবনমান নিশ্চিত করতে হলে সততা ও কর্মদক্ষতার সাথে কাজ করতে হবে। সরকারের সব ধরনের সেবা তৃণমূল পর্যায়ে পৌঁছে দিতে সবসময় সচেষ্ট থাকতে হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬০০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৯, ২০২১
এমআইএইচ/এএটি
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa