ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ মাঘ ১৪২৯, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

‘রেমিট্যান্সযোদ্ধা’দের খুদেবার্তা পাঠাচ্ছে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসন

ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৫, ২০২২
‘রেমিট্যান্সযোদ্ধা’দের খুদেবার্তা পাঠাচ্ছে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসন

মৌলভীবাজার: বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের ক্ষেত্রে প্রবাসী কর্মীদের ভূমিকা অপরিসীম। বিদেশে কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীরা তাদের কষ্টার্জিত বৈদেশিক মুদ্রা দেশে পাঠিয়ে আমাদের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভকে শক্তিশালী করে চলেছেন।

প্রবাসীদের বৈধ পথে রেমিট্যান্স পাঠাতে উদ্বুদ্ধকরণ সংক্রান্ত বিষয়ে প্রেস কনফারেন্স করেছে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসন।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসন সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত প্রেস কনফারেন্সে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) তানিয়া সুলতানা, স্থানীয় সরকার শাখার উপ-পরিচালক মল্লিকা দে, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি), মোহাম্মদ জাহিদ আখতার এবং বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্টনিক মিডিয়াকর্মীরা।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, বর্তমানে বিশ্বের ১৭৩টি দেশের ১ কোটি ৩০ লাখেরও অধিক বাংলদেশি কর্মী বিভিন্ন কাজে নিয়োজিত রয়েছেন। তারা বছরে গড়ে প্রায় ২৪ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স দেশে প্রেরণ করে থাকেন, যা দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বৈদেশিক কর্মসংস্থান একদিকে দেশের বেকারত্ব কমানো করে, অন্যদিকে প্রবাসীদের পাঠানো বৈদেশিক মুদ্রা দেশের আমদানি ব্যয় মেটানো, দারিদ্র্য বিমোচনসহ দেশের অর্থনৈতিক চাকাকে সচল রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

সূত্র আরো জানায়, মৌলভীবাজার জেলা থেকে ২০০৫ সাল থেকে ০৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত মোট দুই লাখ পাঁচ হাজার জন লোকের বৈদেশিক কর্মসংস্থান হয়েছে, যারা দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করছেন।

মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় এবছরেও জেলা প্রশাসন, মৌলভীবাজার ১৮ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস-২০২২ যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের সব প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। আজ ৫ ডিসেম্বর থেকে আগামী বছরের ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত মাসব্যাপী মৌলভীবাজার জেলার অভিবাসীদের অভিবাদন জানিয়ে এবং বৈধ পথে রেমিটেন্স পাঠাতে উৎসাহ দিয়ে আধাসরকারি পত্র ও ক্ষুদে বার্তা পাঠাবে।  

২০০৫ সাল থেকে চলতি বছর পর্যন্ত দুই লাখ পাঁচ হাজার ২৪ জন প্রবাসীদের তালিকা করা হয়েছে। এজন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপজেলাগুলোর ইউএনও, ইউপি চেয়ারম্যানসহ সবাইকে সম্পৃক্ত করা হয়েছে। ইতোমধ্যে এক হাজার ১০ জনের ঠিকানা সংগ্রহ করে বাড়ি গিয়ে ওয়ার্টআপ, ই-মেইলসহ প্রয়োজনীয় তথ্য নিয়ে কাজ শুরু করা হয়েছে বলে জানান মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৫, ২০২২
বিবিবি/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa