ঢাকা, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪৩১, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

মুচলেকা দিয়ে ছাড় পেলেন স্কুলছাত্রীর বাবা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৭, ২০২৩
মুচলেকা দিয়ে ছাড় পেলেন স্কুলছাত্রীর বাবা

ফরিদপুর: ফরিদপুরে ইউএনওর হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেলেন নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া (১৪) এক স্কুল ছাত্রী।

শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে সদর উপজেলার আকুনের চরপাড়া গ্রামে গিয়ে এ বাল্যবিবাহ বন্ধ করেন ইউএনও লিটন ঢালী।

 

এ সময় মেয়ের ১৮ বছর পূর্ণ হবার আগে বিয়ে দেবেন না মর্মে মেয়ের বাবার মুচলেকা নেন তিনি।

জানা যায়, শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে মুসলিমা আক্তার সুমি নামের এক স্কুল শিক্ষার্থীর বাল্যবিবাহের খবর পান ইউএনও লিটন ঢালী। তখনই তিনি দ্রুত ছুটে যান ওই স্কুল শিক্ষার্থীর বাড়িতে। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন সদর উপজেলার সমাজসেবা অফিসার মাহাবুবুর রহমানসহ আনসার বাহিনীর একটি টিম।  

তারা ওই স্কুল শিক্ষার্থীর বাড়িতে পৌঁছে মেয়ের বাবাকে আটক করেন। এসময় ১৮ বছরের আগে ওই মেয়েকে বিয়ে দেবেন না বলে তার লিখিত মুচলেকা নেন ইউএনও।  

এছাড়াও, বিষয়টি নজরদারিতে রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য মারফত হোসেনকে দায়িত্ব দেন ইউএনও লিটন ঢালী।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৭, ২০২৩
এনএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।