ঢাকা, সোমবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৭ মে ২০২৪, ১৮ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

বাজেটের একটি বড় অংশ দরিদ্রদের সেবায় ব্যয় করা হয়: জনপ্রশাসনমন্ত্রী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৪, ২০২৪
বাজেটের একটি বড় অংশ দরিদ্রদের সেবায় ব্যয় করা হয়: জনপ্রশাসনমন্ত্রী

মেহেরপুর: জনপ্রশাসনমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, বাজেটের একটি বিরাট অংশ অসহায় দরিদ্র মানুষের সেবায় ব্যয় করা হয়। সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় প্রতি বছর এক লাখ ২৩ হাজার কোটি টাকা অসহায় দরিদ্র মানুষের সেবায় ব্যয় করা হয়।

রোববার (১৪ এপ্রিল) দুপুরে মেহেরপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সমাজসেবা অধিদপ্তরের আওতায় ক্যানসার, কিডনি, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোকে প্যারালাইজড, জন্মগত হৃদরোগ এবং থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত রোগীদের আর্থিক সহায়তা কর্মসূচির আওতায় আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

মেহেরপুর জেলা প্রশাসক শামীম হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি আরও বলেন, সরকার সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় সমাজসেবা, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, যুব উন্নয়নসহ বিভিন্ন অধিদপ্তরের মাধ্যমে সমাজের অসহায়, দরিদ্র, বিধবা, বয়স্ক, স্বামী পরিত্যক্ত, অসুস্থসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষকে অর্থ সহায়তা দেওয়া হয়ে থাকে।

চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন মেহেরপুর পুলিশ সুপার এএসএম নাজমুল আহসান, মেহেরপুর সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি, সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাত্তার আলোক কুমার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রোমান, সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ডা.কাজী নাজিব হাসান।
 
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন মেহেরপুর জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক কাদের মোহাম্মদ ফজলে রাব্বি।

এই কর্মসূচির আওতায় ১০৪ জন রোগীকে ৫২ লাখ ও শহর সমাজসেবা কল্যাণ সমিতির আওতায় ৬১ জন রোগীকে ২ লাখ ৬১ হাজার পাঁচশ টাকার চেক দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২০২০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৪, ২০২৪
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।