ঢাকা, শনিবার, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

বৃষ্টি আরও ৩-৪ দিন, সতর্কতা সংকেত নেই

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৬ ঘণ্টা, আগস্ট ১৫, ২০১৯
বৃষ্টি আরও ৩-৪ দিন, সতর্কতা সংকেত নেই অবিরাম বৃষ্টি/ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: দেশের সমুদ্র বন্দরগুলোতে সতর্কতা সংকেত নামিয়ে ফেলা হলেও বৃষ্টিসহ বৈরী আবহাওয়ার আগামী তিন থেকে চারদিনে কোনো পরিবর্তনের সম্ভাবনা দেখছে না আবহাওয়া অধিদফতর।

বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, দেশের সব বিভাগেই অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি এবং কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

সকাল ৯টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ভারতের ঝাড়খণ্ডের দক্ষিণাংশ এবং গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি বর্তমানে মধ্য প্রদেশ এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে।

মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল, বিহার ও পশ্চিমবঙ্গ অতিক্রম করে বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত।

মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র তা মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

রংপুর, রাজশাহী, বরিশাল, খুলনা, ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

মৌসুমী বায়ুর সক্রিয়তার কারণে প্রায় সারাদেশেই বৃষ্টপাত হয়েছে। সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ফেনীতে সর্বোচ্চ ১০৩ মিলিমিটার ছাড়াও ঢাকায় ২৩ মিলিমিটার, চট্টগ্রামে ১৭ মিলিমিটার, সিলেটে ১০ মিলিমিটার, রাজশাহীতে ২৮ মিলিমিটার, রংপুরে ৬ মিলিমিটার, খুলনায় ৩২ মিলিমিটার, বরিশালে ১৫ মিলিমিটার এবং ময়মনসিংহে ১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

আগামী তিনদিনে (৭২ ঘণ্টা) উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্রগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আর দেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্র বন্দরগুলোর ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা না থাকায় চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরগুলোকে সতর্ক সংকেত নামিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১৫, ২০১৯
এমআইএইচ/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।