ঢাকা, রবিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৬ মে ২০২৪, ১৭ জিলকদ ১৪৪৫

রাজনীতি

বাংলাদেশকে স্বাধীন রাষ্ট্র মনে হয় না: ফখরুল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ৫, ২০২৪
বাংলাদেশকে স্বাধীন রাষ্ট্র মনে হয় না: ফখরুল

ঢাকা: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বাংলাদেশকে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র বলে মনে হয় না। আমাদের মনে হয়, পুরোপুরিভাবে একটি আধিপত্যবাদী সরকার আমাদের ওপর চেপে বসেছে।

শুক্রবার (০৫ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবে এক ইফতার মাহফিলে তিনি একথা বলেন। বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশ এ ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে।

মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে আমরা একটা ভয়াবহ পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছি। শুধু বিরোধী দল নয়, পেশাজীবী নয়, পুরো জাতি একটা ভয়াবহ পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছে। ১৮ থেকে ২০ বছর ধরে আমরা গণতন্ত্রকে হারিয়ে ফেলেছি। সরকার রাষ্ট্রের সব প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করে ফেলেছে।

তিনি বলেন, আমরা যাদের বিশ্বাস করি, যাদের ওপর আস্থা রাখি- সেটা হলো গণমাধ্যম। সেই গণমাধ্যমের ওপর প্রথম আঘাত করেছে সরকার। অনেক টেলিভিশন-পত্রিকা বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। যারা লিখতে চান, মত প্রকাশ করতে চান, তাদের জন্য সরকার ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন করেছে। তাদের তুলে নিয়ে গিয়ে নির্যাতন করে মারা হচ্ছে। এই সরকারের হাত থেকে গণমাধ্যমও রেহায় পায়নি, পায় না। ফ্যাসিবাদী শক্তি যখন আক্রমণ করে তখন কেউ রেহাই পায় না।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, অনেকে ভাবছেন বিএনপির আন্দোলন নস্যাৎ হয়ে গেছে, বিরোধী দলের আন্দোলন নস্যাৎ হয়ে গেছে, কিন্তু কখনোই না। এই শক্তিগুলো প্রতিটি আন্দোলনের পরে আরও শক্তিশালী হয়েছে।

তিনি বলেন, সরকার আমাদের ব্যাংকসহ সব কিছু ধ্বংস করে দিয়েছে। বিচার ব্যবস্থা, নির্বাচনী ব্যবস্থা সবকিছু তারা ধ্বংস করে দিয়েছে।

এখন সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করাই দায়িত্ব জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, আমি বারবার বলি, আমাদের একটি জাতীয় ঐক্য সুদৃঢ়ভাবে গড়ে তুলতে হবে। জাতীয় ঐক্যের মাধ্যমেই জনগণের শক্তি দিয়ে এই ভয়াবহ দানবকে পরাজিত করতে হবে।

ইফতার মাহফিলে বিএফইউজের একাংশের সভাপতি রুহুল আমিন গজীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আবদুস সালাম, জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল মিয়া গোলাম পরওয়ার, সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল রফিকুল ইসলাম খান, মাওলানা আব্দুল হালিম, কেন্দ্রীয় প্রচার-মিডিয়া সেক্রেটারি অ্যাডভোকেট মতিউর রহমান আকন্দ, কবি আব্দুল হাই শিকদার, বিএনপির মিডিয়া সেলের আহ্বায়ক জহির উদ্দিন স্বপন, বিএফইউজের মহাসচিব কাদের গনি চৌধুরী, ডিইউজের একাংশের সভাপতি মো. শহিদুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক খুরশীদ আলম, ডিইউজের নেতা বাছির জামাল, রাশেদুল হক প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৫, ২০২৪
টিএ/এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।