ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ মে ২০২২, ২৫ শাওয়াল ১৪৪৩

শিল্প-সাহিত্য

শুভ জন্মদিনে সৈয়দ শামসুল হক ও রাবেয়া খাতুন

শিল্প-সাহিত্য ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩২৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৫
শুভ জন্মদিনে সৈয়দ শামসুল হক ও রাবেয়া খাতুন রাবেয়া খাতুন ও সৈয়দ শামসুল হক

আজ ২৭ ডিসেম্বর (রবিবার)। ১৯৩৫ সালের এই দিনে জন্মগ্রহণ করেছেন এদেশের বরেণ্য দু’জন সাহিত্যিক।

সাব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক ও রাবেয়া খাতুন।

সৈয়দ শামসুল হক
তখন তার বয়স ১১ কি ১২। টায়েফয়েডে শয্যাশায়ী কবি দেখলেন, সজনে গাছে লালপাখি বসে আছে। অমনি খাতায় লিখলেন জীবনের প্রথম পদ—‘আমার ঘরে জানালার পাশে গাছ রহিয়াছে/ তাহার উপরে দুটি লাল পাখি বসিয়া আছে। ’

সাহিত্যের সব শাখায় বিচরণরত সাব্যসাচী এ লেখক ১৯৩৫ সালের এই দিনে কুড়িগ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

কৈশোরের প্রারম্ভে দু’লাইনের পদ লিখেলেও এ লেখালেখির বিস্তার ঘটে মেট্রিক পরীক্ষা দেয়ার পর। ১৯৪৯-১৯৫০ সালে সৈয়দ শামসুল হকের নিজের খাতায় কবিতা ছিল প্রায় দুইশ’টি।

১৯৫১ সালে ‘অগত্যা’ পত্রিকায় সৈয়দ শামসুল হকের প্রথম লেখা ছাপা হয়। তবে কবিতা নয়, গল্প। নাম ‘উদয়াস্ত’।

ছোটগল্প, প্রবন্ধ, কবিতা, উপন্যাস, কাব্যনাট্য, কথাকাব্য, গল্প, অনুবাদ ও শিশুসাহিত্যসহ সাহিত্যের প্রায় সব শাখায় নিজের দক্ষতা দেখিয়েছেন যশ এ সাহিত্যিক। বিভিন্ন সময় বাংলা একাডেমি পুরস্কার, একুশে পদক ও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ গুরুত্বপূর্ণ আরো অনেক পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন।

বলে রাখা ভালো, বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত সাহিত্যিকদের মধ্যে সৈয়দ শামসুল হক সবচেয়ে কম বয়সে পুরস্কার গ্রহণ করেন। এ পুরস্কার নেওয়ার সময় তার বয়স ছিল মাত্র ২৯ বছর।

রাবেয়া খাতুন
রক্ষণশীল পরিবারের মেয়ে ছিলেন বলে ১৯৪৮ সালে মাধ্যমিক পাশের পর প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশোনা আর হয়ে ওঠেনি। তবে কর্মজীবনে তিনি থেমে ছিলেন না।

লেখালেখি তো চালিয়ে গেছেনই, পাশাপাশি করেছেন সাংবাদিকতা ও শিক্ষকতা।

বাংলা একাডেমির কাউন্সিল মেম্বার, ঢাকা লেডিজ ক্লাব, বিজনেস ও প্রফেশনাল উইমেন্স ক্লাব, বাংলাদেশ লেখক শিবির, বাংলাদেশ কথা শিল্পী সংসদের সঙ্গে সম্পৃক্ত রাবেয়া খাতুনের লেখা প্রথম উপন্যাসের নাম ‘নিরাশ্রয়া’। তবে এখনো তা অপ্রকাশিত অবস্থায় রয়েছে।

তার লেখা মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস ‘মেঘের পর মেঘ’ অবলম্বনে ২০০৪ সালে চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন চাষী নজরুল ইসলাম। এছাড়া তার ‘কখনো মেঘ কখনো বৃষ্টি’ উপন্যাস অবলম্বনেও চলচ্চিত্র নির্মাণ হয়, ২০০৩ সালে।

কাছাকাছি সময়ে বিভিন্ন পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন তিনি। এরমধ্যে রয়েছে বাংলা একাডেমি পুরস্কার, বাংলাদেশ লেখিকা সংঘ পুরস্কার, নাসিরউদ্দিন স্বর্ণপদক, জসীম উদ্‌দীন পুরস্কার, মাইকেল মধুসূদন পুরস্কার, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি পুরস্কার ইত্যাদি।

সমসাময়িক বরেণ্য এ দু’জন সাহিত্যিককে বাংলানিউজের শিল্প-সাহিত্য বিভাগের পক্ষ থেকে জন্মদিনের আন্তরিক শুভেচ্ছা।

বাংলাদেশ সময়: ১৩২৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৫
এসএমএন/টিকে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa