ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

অর্থনীতি-ব্যবসা

নারীদের সক্রিয় অংশগ্রহণেই অর্থনৈতিক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন সম্ভব 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২০৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২১
নারীদের সক্রিয় অংশগ্রহণেই অর্থনৈতিক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন সম্ভব 

ঢাকা: দেশের অর্ধেক জনগোষ্ঠী নারী। বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীত্বসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ পদে সফলতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন নারীরা।

সর্বোচ্চ রপ্তানিখাত তৈরি পোশাকসহ শিল্পখাতের শ্রমশক্তির অর্ধেকই নারী। এছাড়াও গ্রামীণ নারী উদ্যোক্তারাই চাঙা রেখেছেন দেশের তৃণমূলের অর্থনীতিকে। তাই বাংলাদেশের আগামীর অর্থনৈতিক পরিকল্পনাগুলোর সফল বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে নারীদের সক্রিয় অংশগ্রহণ অপরিহার্য।  

এফবিসিসিআই আয়োজিত ১৬ দিনব্যাপী ‘বিজয়ের ৫০ বছর: লাল সবুজের মহোৎসব’ এর  তৃতীয় দিনের অনুষ্ঠানে দেওয়া স্বাগত বক্তব্যে এসব কথা বলেন এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন।  

শুক্রবার (০৩ ডিসেম্বর)রাজধানীর হাতিরঝিলের অ্যামফিথিয়েটারে এ অনুষ্ঠানে হয়।  

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, আজকের বাংলাদেশের নারীদের সামাজিক, অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে নারীদের সরব অবস্থানের ভিত্তি গড়ে দিয়েছেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি শেখ মুজিবুর রহমান। তারই ধারাবাহিকতায় নারীদের আর্থিক ও সামাজিক ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করেছেন বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার নানামুখী পদক্ষেপে সংসদে নারীদের অংশগ্রহণ বেড়েছে।  

এফবিসিসিআই সভাপতি জানান, সারা দেশে এফবিসিসিআই এর একুশটি মহিলা চেম্বার ও অ্যাসোসিয়েশন রয়েছে। এফবিসিসিআই সব সময় নারী উদ্যোক্তাদের সহায়তা দিয়ে আসছে।  

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, এমপি। তিনি বলেন, গুরুত্বপূর্ণ পদে যেসব নারীরা আছেন, শুধু তারাই নন  বরং তৃণমুলের নারীরাই এদেশে নারী ক্ষমতায়নের মুল কারিগর। কেননা প্রান্তিক অঞ্চলের নারীরাই ঝড়, বন্যা, নদী ভাঙনসহ প্রাকৃতিক দুর্যোগে শক্ত হাতে বারবার ঘুরে দাঁড়ায়। তারা কখনো কঠিন সময়ে হাল ছেড়ে দেয়না।  

তিনি বলেন, মাতৃভাষা আন্দোলন, স্বাধীকার আন্দোলনসহ জাতীয় নানা গুরুত্বপূর্ণ আন্দোলনে নারীরা ছিলেন সামনের সারিতে। মুক্তিযুদ্ধে সম্মুখসমরে, অস্ত্রহাতে নারীরা যুদ্ধ করেছেন। যারা সরাসরি যুদ্ধ করেননি, তারাও মুক্তিযোদ্ধাদের নানাভাবে সহযোগিতা করেছেন।  

শুভেচ্ছা বক্তব্যে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম জানান, বাংলাদেশের নারী ক্ষমতায়নে প্রক্রিয়া হিসেবে সংবিধান কমিটিতে নারীদের স্থান দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু। রাজনীতিতে নারীদের অংশগ্রহণ বাড়াতে সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনের প্রচলনও করেছেন তিনি।  

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক, এমপি। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিশ্বাস করেন নারী পুরুষ সম-অধিকার নিশ্চিত করা গেলে দেশের উন্নয়ন নিশ্চিত করা যাবে। নারী পুরুষের সমতা অর্জনই বাংলাদেশের আজকের সফলতার পেছনের মূল কারণ বলে দাবি করেন প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক।  

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দীন এমপি বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বল্প সময়ের দেশ শাসনে বাংলাদশ উন্নয়নের পথে ধীরে ধীরে এগিয়ে যাওয়া শুরু করেছিল। কিন্তু তাকে নির্মম হত্যাযজ্ঞের পর, দেশ আবার কালো অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়। শত চক্রান্তের বাধা পেরিয়ে আওয়ামী লীগের শাসনামলে প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় নেতৃত্বে ভারত, পাকিস্তানকে আর্থ সামজিক অনেক সূচকে পেছনে ফেলেছে বাংলাদেশ। এমনকী কোভিডের প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যেও বাংলাদেশ সন্তোষজনক প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে।  

অতিথিদের সংক্ষিপ্ত বক্তব্য শেষে,  গান ও নাচের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।  

১৬ দিনব্যাপী ‘বিজয়ের ৫০ বছর: লাল সবুজের মহোৎসব’ এর চতুর্থ দিন শনিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হবে নজরুল উৎসব। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ।

বাংলাদেশ সময়: ০২০৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪, ২০২১
এসই/এমআরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa