ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬ শাওয়াল ১৪৪৫

ফুটবল

‘বায়ার্ন হার মানবে না’, বার্তা হ্যারি কেইনের

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২১৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২৪
‘বায়ার্ন হার মানবে না’, বার্তা হ্যারি কেইনের

বুন্দেসলিগায় এবার বায়ার্ন মিউনিখের রাজত্ব হাতছাড়া হওয়ার পথে। কোথা থেকে ধূমকেতুর মতো দৃশ্যপটে হাজির হয়ে শিরোপার লড়াই থেকে তাদের প্রায় ছিটকেই দিয়েছে বায়ার লেভারকুসেন।

তবে এখনই হাল ছাড়ছে না বাভারিয়ানরা। হাল ছাড়ছেন না দলটির সবচেয়ে বড় তারকা হ্যারি কেইনও।

লাইপজিগের বিপক্ষে কেইনের জোড়া গোলেই জয় তুলে নিয়েছে জার্মান জায়ান্টরা। বাঁ পায়ের অসাধারণ শটে দলের হয়ে গোলের খাতা খোলেন তিনিই। পরে সমতা ফেরান লাইপজিগ স্ট্রাইকার বেঞ্জামিন সেসকো। এরপর যোগ করা সময়ে জয়সূচক গোল করেই হুঙ্কার ছাড়েন ইংলিশ ফরোয়ার্ড কেইন। ২-১ গোলে জেতার পর তিনি  জানিয়ে দেন, বায়ার্ন মিউনিখ কখনোই হার মানবে না।  

লিগে নিজেদের সবশেষ তিন ম্যাচে এটি বায়ার্নের প্রথম জয়। তবে শীর্ষে থাকা লেভারকুসের চেয়ে এখনও ৮ পয়েন্ট পিছিয়ে আছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। তবে এই ব্যবধান কমিয়ে আনার ব্যাপারে বেশ আত্মবিশ্বাসী কেইন, 'আমাদের তাদের (লেভারকুসেন) ওপর চাপ বজায় রাখতে হবে। আমাদের নিজেদের কাজটা করে যেতে হবে। ম্যাচ জেতাটা ভালো হয়েছে এবং বছরের শেষ পর্যন্ত লড়াইটা চালিয়ে যেতে হবে। '

এ মৌসুমে বায়ার্ন কাঙ্ক্ষিত সাফল্য থেকে এখনও দূরে অবস্থান করলেও কেইন ঠিকই নিজের কাজ করে যাচ্ছেন। গোল করছেন নিয়মিতই। গত গ্রীষ্মে টটেনহ্যাম থেকে বায়ার্নে যোগ দেওয়ার পর এখন পর্যন্ত বুন্দেসলিগায় ২৭টি ও সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৩১টি গোল করেছেন তিনি। দলকে জয়ে ফেরানোর পর তার আত্মবিশ্বাসও বেড়ে গেছে। তিনি বলেন, 'আমরা (বায়ার্ন) কখনো হার মানবো না, আমরা কখনো থামবো না। '

এদিকে মৌসুমের প্রায় শেষ পর্যায়ে এসে বায়ার্নের প্রধান কোচ টমাস টুখেলের বিদায়ের ঘণ্টাও বাজতে শুরু করেছে। এই মৌসুম শেষে তার সঙ্গে আর চুক্তি নবায়ন করবে না জার্মান জায়ান্টরা। টানা ১১ বার লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর এবার শিরোপাশূন্য থাকতে হতে পারে জার্মানির সবচেয়ে সফলতম ক্লাবটিকে। গত আগস্টে জার্মান সুপার কাপ এবং নভেম্বরে জার্মান কাপ থেকে বিদায় নিয়েছে তারা। চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগেও তারা ১-০ গোলে হেরেছে লাৎসিওর কাছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২১৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২৪
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।