ঢাকা, রবিবার, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

অফবিট

যে দেশে প্রেমিকা না থাকলে ট্যাক্স দিতে হয়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫১৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২৩
যে দেশে প্রেমিকা না থাকলে ট্যাক্স দিতে হয় প্রতীকী ছবি

জনগণের ওপর নানা উপায়ে ট্যাক্স আরোপ করে দেশের সরকার। কিছু কিনতে গেলে কিংবা রেস্তোরাঁয় খেতে গেলে ট্যাক্স দিতে হয়।

সাধারণত ইনকাম ও সম্পদের ওপরই বেশিরভাগ দেশের সরকার ট্যাক্স আরোপ করে।

শুনে অবাক হবেন বিশ্বের এমন অনেক দেশ আছে, যেখানে প্রেমিকা না থাকলেও ট্যাক্স দিতে হয় সরকারকে।

আমেরিকার মিসৌরি শহরে ব্যাচেলর থাকতে হলে ট্যাক্স দিতে হয়। সেখানে ২১ থেকে ৫০ বছর বয়সী ব্যাচেলর পুরুষদের কাছ থেকে ট্যাক্স হিসেবে নেওয়া হয় ১ ডলার। যদিও এ ট্যাক্সের প্রচলন শুরু হয় কয়েকশো বছর আগেই।

১৮২১ সাল থেকে আমেরিকার মিসৌরিতে এ ট্যাক্স দেওয়া শুরু হয়। অনেক পুরুষ আছেন বিয়ে করতে চান না কিংবা প্রেমেও বিশ্বাস করেন না। ফলে দেশে জনসংখ্যাও কমতে থাকে। ফলে দেশের সরকার পুরুষদের ব্যাচেলর থাকার অনুমতি দেয়, তবে তার জন্য বাৎসরিক ট্যাক্স আরোপ করে দেয়।

অবিবাহিত পুরুষদের ওপর এ ধরনের ট্যাক্সের শুরু মিসৌরিতে নয়। ১৬৯৫ সালে ইংল্যান্ডে জুলিয়াস সিজার এই ট্যাক্সের ঘোষণা দিয়েছিলেন। ১৭০২ সালে রাশিয়ায় এ ট্যাক্স চালু করেন পিটার দ্য গ্রেট এবং ১৯২৪ সালের শেষের দিকে ইতালিতেও মুসোলিনি ব্যাচেলর ট্যাক্স চালু করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৪, ২০২৩
জেডএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।