ঢাকা, শনিবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

অফবিট

পৃথিবীর মতোই নতুন গ্রহ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০২৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৭, ২০১৭
পৃথিবীর মতোই নতুন গ্রহ রস ১২৮-বি’ নামের নতুন গ্রহ।

ঢাকা: আমাদের পৃথিবীর মতোই বৈশিষ্ট্যধারী একটি নতুন গ্রহের সন্ধান পেয়েছেন জ্যোতির্বিজ্ঞানিরা। বলা হচ্ছে, এটিই পৃথিবীর সবচেয়ে নিকটবর্তী গ্রহ যেখানে জীবনের বিকাশ ঘটা সম্ভব।

‘রস ১২৮-বি’ নামের এ গ্রহটির আকৃতি পৃথিবীর সমান। এর ভূপৃষ্ঠের তাপমাত্রাও পৃথিবীর তাপমাত্রার অনেক কাছাকাছি।

পৃথিবী থেকে ১১ আলোকবর্ষ দূরে লাল রঙের এক বামন নক্ষত্রকে প্রদক্ষিণ করে চলেছে গ্রহটি।

বর্তমান প্রযুক্তির সাহায্যে এ গ্রহে পৌঁছাতে সময় লাগবে প্রায় এক লাখ ৪১ হাজার বছর। তবে গবেষকরা এর গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করে বলছেন, গ্রহটি পৃথিবীর দিকে সরে আসছে। এ গতিতে পৃথিবীর কাছাকাছি পৌঁছাতে গ্রহটির সময় লাগবে ৭৯ হাজার বছর।

ইউরোপিয়ান মহাকাশ পর্যবেক্ষণাগারের জ্যোতির্বিজ্ঞানিরা হার্পস নামে একটি বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন অন্বেষণ যন্ত্রের সাহায্যে লাল বামন নক্ষত্র ও রস ১২৮-বি নামের গ্রহটি খুঁজে পান। স্বল্প ভর বিশিষ্ট গ্রহটি প্রায় দশ দিনে এর নক্ষত্রকে প্রদক্ষিণ করে।

হার্পস থেকে পাওয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে গবেষকরা জানান, গ্রহটির রেডিয়েশনের মাত্রা পৃথিবীর তুলনায় কম। এর ভূপৃষ্ঠের তাপমাত্রা মাইনাস ৬০ ডিগ্রি থেকে ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। লাল বামন নক্ষত্রটির পৃষ্ঠের তাপমাত্রা সূর্যের তুলনায় অর্ধেক হওয়ায় গ্রহটিতে সব সময়ই শীতল আবহাওয়া বিরাজ করে।

এর আগে নাসার স্পিটজার স্পেস টেলিস্কোপ ব্যবহার করে আমাদের সৌরজগতের মতোই আরেকটি সৌরজগতের সন্ধান পাওয়া যায়। এ সৌরজগতের সাতটি গ্রহই পৃথিবীর প্রায় সমান আকৃতির। এর মধ্যে তিনটি গ্রহের বৈশিষ্ট্য পৃথিবীর অনেক কাছাকাছি।

বাংলাদেশ সময়: ০৬২০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৬, ২০১৫
এনএইচটি/এএ/জেডএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।