ঢাকা, শুক্রবার, ৭ মাঘ ১৪২৮, ২১ জানুয়ারি ২০২২, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

জঙ্গলমহলে শান্তি এলে যৌথবাহিনী তুলে নেব: মমতা

রক্তিম দাশ. সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২৮ ঘণ্টা, জুলাই ৭, ২০১১

কলকাতা: জঙ্গলমহলের শান্তি প্রতিষ্ঠায় ৭ দফা কর্মসূচি ঘোষণা করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বৃহস্পতিবার বিকালে মহাকরণে মুখ্যমন্ত্রীর কনফারেন্স রুমে জঙ্গলমহল নিয়ে গঠিত বিশেষ কমিটির শান্তি ও উন্নয়ন বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়।

প্রায় দেড় ঘন্টা ধরে এই বৈঠক চলে।

এদিনের বৈঠকে পর মমতা ব্যানার্জি বলেন,‘ যদি মাওবাদীরা এবং অন্য সংগঠনগুলি অস্ত্র সমর্পণ করে তাদের রাজ্য সরকার সামাজিক পুনর্বাসন দেবে। এবং রাজ্য সরকার এই বিষয়ে কোনও রকম প্রতিহিংসা দেখাবে না। জঙ্গলমহলে উন্নয়নের কাজ চলবে, যারা ভয় দেখাচ্ছে তারা যেন দূরে থাকে। ’

এদিন তিনি বন্দিমুক্তি কমিটির সদস্যদের কাছে আহ্বান জানান তারা যেন জঙ্গলমহলে গিয়ে শান্তি আলোচনা করেন ও শান্তির প্রক্রিয়াকে তরান্বিত করেন।

তিনি বলেন, ‘জঙ্গলমহলকে অস্ত্র মুক্ত করতে হবে। যে মূহুর্তে রাজ্য সরকারের কাছে খবর আসবে জঙ্গলমহলে অস্ত্র নেই বা সন্ত্রাসবাদী সংগঠন নেই, তখনই সেখান থেকে যৌথবাহিনী প্রত্যাহার করা হবে। ’

সাবেক বামফ্রন্ট সরকারের সমলোচনা করে মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন,‘ গত ৩৫ বছর ধরে যে সরকার ছিল তারা জঙ্গলমহলের জন্য কিছুই করেনি। সেখানে শিক্ষা নেই, স্বাস্থ্য নেই, বাসস্থান নেই, কৃষি নেই। সেইগুলিকে ফিরিয়ে আনার জন্য উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ’

তিনি আরও বলেন,‘ ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্য ও খাদ্য সরবারহর জন্য নানা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সেই ব্যবস্থা অব্যগত রাখার জন্য তদারকি কমিটিও গঠন করা হয়েছে। সরকার এই উন্নয়নকে আরও বাড়াতে চায়। ’

বিগত সরকারে বিভিন্ন অত্যাচারের অভিযোগের পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করবে রাজ্য সরকার এদিন এও জানান মুখ্যমন্ত্রী।

ভারতীয় সময়: ১৮০০ ঘন্টা, জুলাই ০৭, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa