ঢাকা, শনিবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ আগস্ট ২০২২, ১৪ মহররম ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক

উগান্ডায় ‘স্বর্ণখনির’ সন্ধান, অর্থনীতি বদলে যাওয়ার সম্ভাবনা

নিউজ ডেক্স | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৫০ ঘণ্টা, জুলাই ৪, ২০২২
উগান্ডায় ‘স্বর্ণখনির’ সন্ধান, অর্থনীতি বদলে যাওয়ার সম্ভাবনা

পূর্ব আফ্রিকার দেশ উগান্ডায় মাটির নিচে মিলেছে বিপুল পরিমাণ স্বর্ণের এক খনির সন্ধান। এ থেকে দেশটির ১২ লাখ কোটি মার্কিন ডলারেরও বেশি আয় হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এটির ফলে দারিদ্র্যপীড়িত দেশটির অর্থনৈতিক অবস্থার চিত্র পুরোপরি বদলে যাবে বলে আশা করছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

রয়টার্সের দেওয়া এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত জুন মাসে ৩ কোটি ১০ লাখ টন স্বর্ণ আকরিকের সন্ধান পাওয়ার কথা জানিয়েছিলেন উগান্ডার প্রেসিডেন্ট ইয়োরি মুসেভেনি। আর পরিশোধনের পর এ থেকে অন্তত ৩ লাখ ২০ হাজার টন বিশুদ্ধ স্বর্ণ পাওয়া যাবে বলে ধারণা করা হয়। এ জন্য বিদেশি বড় কোনো কোম্পানির কাছ থেকে বিনিয়োগ আশা করছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট।

এ পর্যন্ত স্থানীয় ছয়টি স্বর্ণ পরিশোধনকারী প্রতিষ্ঠানের কথা উল্লেখ করেন প্রেসিডেন্ট ইয়োরি মুসেভেনি। তিনি বলেন, উগান্ডা থেকে অপরিশোধিত স্বর্ণ রপ্তানির দিন শেষ।

দেশটির জ্বালানি ও খনিজ মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সলোমন মুয়িতা উগান্ডার গণমাধ্যম ডেইল মনিটরকে জানান, তাদের স্বর্ণসমৃদ্ধ এলাকাগুলো পূর্বউগান্ডার বুসিয়া ও ক্যারামোজা, মধ্য উগান্ডার ক্যামেলেং, কিসিটা, এনগুগো এবং পশ্চিম উগান্ডার বুশেনিতে অবস্থিত। এসব এলাকায় মজুত থাকা ৩ কোটি ১০ লাখ টন আকরিক পরিশোধনের পর অন্তত ৩ লাখ ২০ হাজার ১৫৮ টন বিশুদ্ধ স্বর্ণ পাওয়া যাবে। এসব স্বর্ণের আনুমানিক মূল্যমান ১২ লাখ ৮০ হাজার কোটি মার্কিন ডলার।

মুয়িতা আরও বলেন, ওয়াগাগাই নামে একটি চীনা প্রতিষ্ঠান বুসিয়ায় খনিতে কাজ শুরু করেছে। এ বছরেই তাদের উৎপাদন শুরু হতে পারে। খনিটি থেকে প্রতিদিন পাঁচ হাজার কেজি স্বর্ণ উত্তোলন করা সম্ভব হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৪৭ ঘণ্টা, জুলাই ৪, ২০২২
এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa